অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের নতুন রুট মরক্কো থেকে পর্তুগাল

0
3296
সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ প্রবেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অভিবাসীদের যাত্রা (অনলাইন ছবি)

দেশে থাকা বিভিন্ন সমস্যা ও উন্নত জীবনের আসায় বিভিন্ন দেশের অভিবাসীগণ ইউরোপ গামী হচ্ছেন । আর এতে সময়ের সাথে সাথে আগতদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে । বৈধভাবে ইউরোপে প্রবেশ অনেক কঠিন ও ব্যয় বহুল হওয়াতে এসব অভিবাসীগণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে দালালের মধ্যে ইউরোপে প্রবেশ করছেন । এতে প্রতি বছর সমুদ্রে নৌকা ডুবে প্রাণ হারাচ্ছে শত শত মানুষ ।

ইউরোপে অবৈধ পথে প্রবেশে অভিবাসীদের জন্য এক রাস্তা বন্ধ হলে আরেক রাস্তা খোলে ।

ইউরোপে অভিবাসিদের স্রোত কোন ভাবে থামছেনা । এমনকি করোনা ভাইরাস সংক্রমণে লকডাউনের মধ্যেও এসব বিপজ্জনক পথে ইউরোপ আসছে অভিবাসিরা ।

করোনা মহামারিতে ইউরোপের সীমান্তগুলো বন্ধ । তাতে কী ? খুলেছে নতুন পথ । আর সে পথ হলো আফ্রিকার মরক্কো থেকে স্পেনের পশ্চিম উপকূল ঘেঁষে পর্তুগালের দক্ষিণে Algarve অঞ্চলের সমুদ্র সৈকতের পথ ।

পর্তুগাল সরকার জানিয়েছে গত ৬ মাসে এই পথে বহু অভিবাসি আফ্রিকার মরক্কো দিয়ে সমুদ্র পথে বোটে চড়ে স্পেনের পশ্চিম তীর ধরে পর্তুগালে পৌছায় । এমনকি গত ১৫ জুন এইভাবে এই পথ দিয়ে আসা একটি বোট পর্তুগালের দক্ষিণে Algarve সৈকতে নামে । আর সেখানে ২২ জন অভিবাসি ছিলো । লিবিয়া-ইতালি, মরক্কো-স্পেন রুটের পর এখন মরক্কো-পর্তুগালের সাগর পথের বিপজ্জনক রুটটি দিনদিন অভিবাসিদের কাছে জনপ্রিয় হচ্ছে ।

সমুদ্র পারি দিয়ে ছোট্ট বোটে ইউরোপ যাত্রা খুবই বিপজ্জনক, তবে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে এভাবে অবৈধ পথে ইউরোপ যাত্রা আর ভংয়কর । কারণ এতে একজনের থেকে অন্য জন সংক্রমণের আশংকা খুবই বেশি ।
জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা(আইওএম) জানায়, ভূমধ্যসাগর পারি দিতে গিয়ে ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২০ হাজারেরও বেশি শরণার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

ফ্রান্স বাংলা/১৮/০৬/২০২০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here