মক্কায় মসজিদুল হারামে অনুষ্ঠিত রমজানের প্রথম তারাবির কিছু স্থিরচিত্র

0
161
পবিত্র হারামাইন শরীফে তারাবীহ নামাজ আদায়ের দৃশ্য ।

করোনা সংকটের কারণে পবিত্র মক্কা ও মদিনা সংক্ষিপ্ত আকারে তারাবীহ নামাজ পড়া হয়েছে। শুধুমাত্র দায়িত্ব পালনকারী মুসল্লিগণ এই নামাজে অংশগ্রহণ করেন ।

একই জামাতে সালাত আদায় করেছেন মসজিদে হারামের সকল খতীব ও ইমাম।

সৌদি আরবে শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রামাদ্বান । ফলে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) থেকে কাবা শরিফ ও মদিনার মসজিদে নববিতে ইশার পরপরই শুরু হবে তারাবি।

তবে মহামারী করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার এই দুই পবিত্র মসজিদ সংক্ষিপ্ত ভাবে ১০ রাকাআত তারাবি পড়া হবে।

হারামাইন কর্তৃপক্ষ রমজানের তারাবি ও তাহাজ্জুদের সময়সূচী ও ইমামদের নাম প্রকাশ করেছে। এবার মাগরিবের নামাজের ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট পর শুরু হবে তারাবি।

এ বছর ১-২০ রমজান পর্যন্ত প্রতিদিন ১০ রাকাআত তারাবি দুইজন ইমামের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হবে। আর ২১ রমজান থেকে শেষ রোজা পর্যন্ত ১০ রাকাআত তারাবি এর সঙ্গে শেষ রাতে ১০ রাকাআত তাহাজ্জুদ পড়া হবে। উভয় নামাজেই আলাদা ইমামগণ ইমামতি করবেন।

দুই পবিত্র মসজিদে প্রধান ইমাম ও খতিব শায়খ ড. আব্দুর রহমান ইবনে আব্দুল আজিজ আল-সৌদ আগেই জানিয়েছিলেন যে, এবারের প্রতিদিনের তারাবি নামাজ দুই জন ইমাম পরিচালনা করবেন। প্রথম জন ৩ সালামে ৬ রাকাআত পড়াবেন। আর দ্বিতীয় জন ২ সালামে ৪ রাকাআত তারাবি, বিতর এবং দোয়া করবেন।

শায়খ সুদাইসি ঘোষিত এ ধারাবাহিকতা চলবে ২০ রমজান পর্যন্ত। ২১ রমজান থেকে সন্ধ্যা রাতের বিতর অনুষ্ঠিত হবে না। শেষ রাতের ১০ তাহাজ্জুদের পর পড়া হবে বিতর।


তাহাজ্জুদ পড়া হবে ১০ রাকাআত। তারাবি নামাজের ন্যায় দুই জন ইমাম তাহাজ্জুদ ও বিতর পড়াবেন। প্রথম দুই রাকাআত পড়াবেন মদিনার মসজিদে নববির প্রবীণ ইমাম সুমধুর কণ্ঠের ক্বারী শায়খ ড. আব্দুর রহমান আল-হুজাইফি। পরের ৪ রাকাআত পড়াবেন একজন এবং শেষ ৪ রাকাআত, বিতর ও দোয়ায় নেতৃত্ব দেবেন তৃতীয় একজন। কাবা শরিফ ও মদিনায় একই নিয়মে পরিচালিত হবে রমজানের বিশেষ ইবাদত তারাবি ও তাহাজ্জুদ।

করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি অনুকূলে না আসলে পুরো সৌদিআরবের সব মসজিদেই তারাবি, ইফতার, ইতেকাফসহ রমজানের বড় জমায়েত স্থগিত থাকবে। পবিত্র দুই মসজিদের ঐতিহ্য ইফতার এবং ইতেকাফও এবার বন্ধ থাকবে।
পবিত্র কাবা শরিফ ও মদিনার মসজিদে নববীর স্থানীয়দের জন্য তারাবিতে অংশগ্রহণে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ দুই পবিত্র মসজিদে দায়িত্ব পালনকারীরাই শুধু অংশগ্রহণ করবেন। তবে এ দুই পবিত্র মসজিদের তারাবি নামাজ পাঞ্জেগানা নামাজের মতো সরাসরি সম্প্রচার করবে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

এই পবিত্র রামাদ্বান মাসের উছিলায় আল্লাহ তায়ালার করোনা নাম এই মহামারী থেকে বিশ্ববাসীকে মুক্তি দিবেন এমনটা প্রত্যাশা বিশ্বের সকল মুসলমানদের ।

Online

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here