ভূমধ্যসাগরের লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবে ৪৫ অভিবাসীর মৃত্যু !

0
956
ভূমধ্যসাগরে ডুবে যাওয়া নৌকা থেকে অভিবাসীদের উদ্ধার করা হচ্ছে ( অনলাইন ছবি)

ফ্রান্স বাংলা ডেস্ক: লিবিয়ায় অভিবাসীবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় পাঁচ শিশুসহ কমপক্ষে ৪৫ জন মারা গেছেন। জাতিসংঘ বলছে এটি চলতি বছরের সবচেয়ে মারাত্বক অভিবাসীবাহী নৌকাডুবির ঘটনা।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর- এর পক্ষ থেকে বুধবার বলা হয়, লিবিয়ার জাওয়ারা উপকূলে ইঞ্জিন বিস্ফোরিত হয়ে নৌকাটি ডুবে যায়। নৌকাটিতে ৮০ জনের বেশি মানুষ ছিলেন। নৌকাটি ডুবে যাওয়ার পর স্থানীয় মৎসজীবীরা ৩৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করেছেন। জানা গেছে, জীবিত উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে বেশিরভাগই আফ্রিকার দেশ সেনাগাল, মালি, চাদ এবং ঘানার নাগরিক।

এই ঘটনায় ইউএনএইচসিআর এবং আন্তর্জাতিক অভিভাসী সংস্থা(আইওএম) নিখোঁজদের উদ্ধারে অভিযান জোরদার করার আহ্বান জানিয়েছে।

জানা গেছে, চলতি বছর লিবিয়া হয়ে ইউরোপে যাওয়ার জন্য ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেওয়ার সময় কমপক্ষে ৩০০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

২০১১ সালে অভ্যুত্থানের পরে লিবিয়ার স্বৈরশাসক গাদ্দাফির পতনের পর ইউরোপ যাওয়ার জন্য আফ্রিকা ও আরব অভিবাসীদের প্রধান ট্রানজিট পয়েন্ট হয়ে ওঠে লিবিয়া। বেশিরভাগ অভিবাসীই অনিরাপদ এবং ছোট রাবারের নৌকায় চড়ে বিপদসংকুল ভূমধ্যসাগর পারি দেওয়ার চেষ্টা করেন।

আর এই বিপদজন পথে সমুদ্র পাড়ি দিতে গিয়ে অনেক বাংলাদেশী অভিবাসীর মৃত্যু হয়েছে। গত ২৮মে সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ইউরোপে পাঠানোর কথা বলে মানবপাচারকারীরা প্রায় অর্ধশত অভিবাসীকে একটি ঘরে বন্ধি করে রাখে । আর্থিক লেনদেন নিয়ে ঝামেলার সূত্র ধরে পাচারকারীদের এক সদস্য ২৬ বাংলাদেশী সহ  ৩০ অভিবাসীকে  গুলি করে হত্যা করে । এখনও অনেক বাংলাদেশী এই বিপজ্জনক পথ পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার জন্য লিবিয়াতে অবস্থান করছেন ।

ফ্রান্স বাংলা- ২০/০৮/২০২০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here