বয়কট নয়, এখন কমনওয়েলথ গেমস পেতে আগ্রহী ভারত

0
0
বয়কট নয়, এখন কমনওয়েলথ গেমস পেতে আগ্রহী ভারত

ডামে লুইস মার্টিন। তিনি বলেছেন, ‘‘ভারতের সিদ্ধান্তে আমরা খুশি। এটা কমনওয়েলথ আন্দোলনের পক্ষে ভাল খবর।’’ 

প্রেসিডেন্ট নরেন্দ্র বাত্রাকে পাশে বসিয়ে রাজীব মেটা জানিয়ে দেন, তাঁদের পরের পদক্ষেপ হতে চলেছে কমনওয়েলথ গেমস আয়োজনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে অনুমতি আদায় করা। ২০১০ সালে দিল্লিতে শেষবার অনুষ্ঠিত হয়েছিল গেমস। তারপর আর্থিক তছরুপ-সহ নানা ঘটনা ঘটেছিল। প্রচুর খরচ নিয়ে প্রশ্নও উঠেছিল। বর্তমান অর্থনৈতিক মন্দার পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় সরকার শেষ পর্যন্ত গেমস সংগঠনের অনুমোদন দেবে কি না, তা নিয়ে সন্দিহান আইওএ কর্তারাই। সচিব বলেছেন, ‘‘আমাদের সভায় বিড করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু এ বিষয়ে চূড়ান্ত অনুমোদন দেবে কেন্দ্রীয় সরকার।’’ ২০২৬-এর গেমস কোথায় হবে, তা ঘোষিত হবে নতুন বছরের মার্চ মাসে। 

বয়কটের পথ থেকে সরে এলেও শুটিং-কে ইভেন্ট হিসাবে নেওয়া হবে কি না, তা নিয়ে ধোঁয়াশা অবশ্য কাটেনি। আইওএ প্রেসিডেন্ট নরেন্দ্র বাত্রা বলেছেন, ‘‘২০২০-র মার্চে কী হবে, তা নিয়ে কোনও ভবিষ্যৎবাণী করা ঠিক হবে। ভাল কিছু হবে আশা করেই যোগ দেব আমরা। সিজিএফ এ এই ব্যাপারে যথেষ্ট ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে।’’ পাশাপাশি মজার ব্যাপার হল, আইওএ-র সভায় মূল গেমসের আগে কমনওয়েলথ তিরন্দাজি করার জন্য আবেদন করার সিদ্ধান্ত হয়। শুটিংয়ের মতো তিরন্দাজিকেও পদক-ইভেন্ট হিসাবে রাখা হয়নি এখনও। নতুন ‘স্পোর্টস কোড’ নিয়েও কোনও মন্তব্য করতে চাননি বাত্রা। বলেছেন, ‘‘এটা নিয়ে কিছু বলব না।’’ তিনি জানিয়ে দেন, টোকিয়ো অলিম্পিক্সে ১২৫ থেকে ১৬০ অ্যাথলিট যোগ দেবেন।  

টিটি প্রশিক্ষণ শিবির: মন্তেসরি টেবল টেনিস প্রশিক্ষণ শিবির শেষ হল সিএলটি-তে। চার থেকে আট বছর বয়সি ৬০টি ছেলে ও মেয়েকে শংসাপত্র দেওয়া হয়। উপস্থিত ছিলেন জাতীয় চ্যাম্পিয়ন সুতীর্থা মুখোপাধ্যায়, এশিয়ান হোপস চ্যাম্পিয়ন সায়নি পণ্ডা, প্রাক্তন ফুটবলার প্রদীপ চৌধুরী।

আন্তঃজেলা বক্সিং: শিবপুর রিজার্ভ পুলিশ লাইনে আয়োজিত আন্তঃজেলা বক্সিং প্রতিযোগিতায় সেরা হলেন হাওড়ার মেহতাব আলম। দলগত বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হাওড়া জেলা বক্সিং সংস্থা। চার দিনের প্রতিযোগিতায় যোগ দিয়েছিলেন ৮৯ জন বক্সার।

সূত্র: আনন্দ বাজার পত্রিকা

Advertisement By Francebanglanews

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here