ফ্রান্স থেকে দেশে পাঠিয়ে দেয়ার আশংকায় ৫ সন্তান নিয়ে বিপাকে একটি বাংলাদেশী পরিবার

0
6277
মোহাম্মদ সালেহ আহমদের পরিবার

ফ্রান্স থেকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়ার প্রক্রিয়া হচ্ছে বাংলাদেশের ৪২ বছরের মোহাম্মদ সালেহ আহমদের পরিবারকে,। তিনি থাকেন প্যারিস থেকে ১৫.২ কিলোমিটার পূর্বে Noisy-le-Grand এরিয়ায় ।

তিনি ২০১৪ সালে ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য আবেদন করেন । কিন্তু ফ্রান্স কর্তৃপক্ষ তার তিনি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রত্যাহার করে। । পরে ফ্রান্সের কাগজ হওয়ার (বৈধতার ) প্রক্রিয়াগত পদ্ধতি চেষ্টা করেও সফল হননি ।

মোহাম্মদ সালেহর দুটি সন্তান প্যারিস থেকে ৯.৪ কিলোমিটার উওরে Saint-Denis এরিয়ার স্কুলে পড়ে । তার ৫ সন্তান রয়েছে । এর মধ্যে দু’জন সন্তানের জন্ম ফ্রান্সে । পঞ্চম সন্তান জন্মের পর গত মাসে অর্থ্যাৎ ৩১ মে তিনি বাসার বাইরে গিয়েছিলেন স্ত্রীর জন্য ঔষধ কিনতে । কিন্তু পাপিয়া কন্ট্রোলে তিনি পড়ে যান । তখন তাকে Saint-Denis পুলিশ হেফাজতে রাখা হয় এবং ১ জুন তাকে ছেড়ে দেয়া হয় । কিন্তু মোহাম্মদ সালেহকে ছেড়ে দেয়া হলেও তাকে আগামী তিন মাসের মধ্যে ফ্রান্স থেকে বহিস্কারের আদেশ দেয়া হয় । এবং তিনি এই বহিস্কার আদেশের বিরুদ্ধে আদালতে আপীল করেছেন বটে । তবে তিনি এখন ফ্রান্স আইনে ডিটেনশন সেন্টারে রেখে বিমানযোগে জোরপূর্বক বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়ার পরিস্থিতিতে রয়েছেন । এবং যে কোনো সময় তাকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়া হতে পারে এমন আশংকা তার ও তার পরিবারের ।

এই ব্যাপারে তার স্ত্রী মালিকা বলেন – তার পুরো পরিবারটি এখন সমস্যাগ্রস্থ । বাংলাদেশী মোহাম্মদ সালেহ ও তার পরিবার নিয়ে ফ্রান্সের Lejsd পত্রিকা গত ৩ জুন রিপোর্ট করেছে । মোহাম্মদ সালেহ ফ্রান্স সরকারের কাছে মানবিক দৃষ্টিতে তার বিষয়টি দেখার অনুরোধ করেছেন ।

ফ্রান্স বাংলা নিউজ/০৫/০৬/২০২০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here