ইংল্যান্ডে আগামী এপ্রিলে রেস্টুরেন্ট ব্যবসায় আলো জ্বলবে

0
510
ইংল্যান্ডে আগামী এপ্রিলে রেস্টুরেন্ট ব্যবসায় আলো জ্বলবে

▪︎ইংল্যান্ড প্রতিনিধি: মহামারী করোনা ভাইরাসে সারা ইংল্যান্ডে চলছে কঠোর লকডাউন, প্রতিদিন মারা যাচ্ছেন শত শত মানুষ এবং আক্রান্ত হচ্ছেন হাজার হজার মানুষ । বন্ধ রয়েছেন অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ।

আগামী এপ্রিল মাসের মধ্যে বৃটিশ কারি ইন্ডাস্ট্রিতে আবারো আলো জ্বলবে। লাখ লাখ মানুষের কোলাহলে কর্ম মুখর হবে হসপিটালিটি সেক্টর। এমনটি প্রত্যাশা করছেন সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ। এই সময়ের মধ্যে ইংল্যান্ডে অর্ধেক প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের টিকা দান সম্পন্ন হবে বলেও তারা দৃঢ় আশাবাদী।

অধিক দুর্বল এবং ৫০ বছরের বেশি বয়সী ৩২ মিলিয়ন জনগনকে এপ্রিলের মধ্যে ভ্যাকসিন প্রদানের কর্মসূচি দ্রুত এগিয়ে চলেছে বলে গত রাতে সরকারিভাবে জানানো হয়েছে। এপ্রিলের শেষে বসন্তের রোদে এবং মে মাসে দ্বিতীয় ব্যাংক হলিডে উইকএন্ডে কারি ইন্ডাস্ট্রি মুক্তভাবে দরজা খূলবে বলে আশা জেগেছে।

ইতিমধ্যে হসপিটালিটি সেক্টরকে বাঁচাতে সরকার বিজনেস গ্রান্ট ও ফারলো স্কিমে অনেক সুবিধা দিয়েছে। এছাড়া বাউন্স ব্যাক লোন দিয়ে সহায়তা করেছে। ছয় মাসের জন্য ১৫ শতাংশ ভ্যাট কমিয়ে ৫ শতাংশে এনেছে। ইট আউট হেল্প স্কিমে কাস্টমার প্রতি বিশেষ ছাড় দিয়েছে।

মন্ত্রীরা আতিথেয়তা সেক্টরের প্রতি আন্তরিক এবং এই সময়ে পাব ও রেস্তোরাঁগুলি সঠিক ভাবে খুলতে তারা দৃঢ়় প্রতিজ্ঞ। এই শিল্প সংশ্লিষ্টদের মতে, মহামারী শুরু হওয়ার পর থেকে তাদের ৮৭ মিলিয়ন পানীয় ও খাবার নষ্ট হয়েছে। যার বাজার মুল্য ৩৩১ মিলিয়ন পাউন্ড। বৃটিশ বিয়ার অ্যান্ড পাব অ্যাসোসিয়েশনের চিফ এক্সিকিউটিভ এমা ম্যাক ক্লার্কিন বলেছেন, তাদের সেক্টরে গত ১০ মাসে ভয়াবহ অর্থেনৈতিক বিপর্যয় ঘটেছে।

ক্যাবিনেট সেক্রেটারি মাইকেল গভ ইন্ডাস্ট্রিতে খাবার পরিবেশনের উদাহরণ দিয়ে তার আন্তরিক ভাবনার প্রকাশ করেছেন। গত রাতে একাধিক হোয়াইটহল সূত্র এবং মন্ত্রীরা এই পরিকল্পনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে জো র দিয়েছেন, মৃত্যুহার ও করো না ভাই রাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের উপর সবকিছুই নির্ভর করছে।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি একটি ভাষণে লকডাউন সমাপ্ত ঘোষনা করার পরিকল্পনা করছেন। এই ঘোষনায় পাব এবং রেস্তোঁরাগুলি আবার কখন বাণিজ্য শুরু করতে পারবে, সে তারিখ জানানো হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

প্রথম পর্যায়ে স্কুলগুলি মার্চ মাসে চালু হবার পর বাইরে ব্যায়াম করা এবং একত্রে মিলিত হবার সুযোগ সৃষ্টি হবে। খসড়া ব্লুপ্রিন্টের আওতায় যেসব কর্মকাণ্ড ঘরের বাইরে করতে হয় সেগুলিকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। এতে পাব এবং রেস্তোঁরা ছাড়াও বাজার এবং রাস্তার দোকানগুলি খোলার অনুমতি মিলবে।

বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করার সময় আঞ্চলিক ব্যবস্থায় ফিরে আসার ক্ষেত্রে দেশব্যাপী এই বিধি প্রয়োগ করা হবে। এখন পর্যন্ত কেবলমাত্র প্রাথমিক স্কুলগুলির ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ভাবে মন্ত্রিরা একমত হয়েছেন। তবে অন্যান্য ব্যবস্থাগুলি মন্ত্রণালয়ের সাথে আধিকারিকরা সাইন অফ করার মাধ্যমে তা গ্রহণ করা হবে।

ভ্যাকসিনস মন্ত্রী নাদিম জাহাওয়ী বলেছেন, বসন্তের শেষের দিকে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদের টিকা দানের পর বৃটেন ব্যাপকভাবে নিষেধাজ্ঞা সমূহ সহ জ করতে সক্ষম হবে। ১০ ডাউনিং স্ট্রিট সুত্র বিশ্বাস করে আগের ন্যায় বসন্ত শেষ হবে এবং গ্রীষ্মকালীন সূচনা হবে।

কোভিডের কিছু বিধি নিষেধ কার্যকর থাকার আশংকা সত্ত্বেও মে মাসে স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে ভাবা হচ্ছে। সুত্র মতে, টিকাদান কর্মসূচি মে মাসের মধ্যেই নয়টি অগ্রাধিকার স্তরে পৌঁছানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। যার অর্থ সরকার নির্বাচন নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সাথে এগিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here