অভিবাসী বান্ধব “মার্সেলো রেবেলো” পুনরায় পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

0
565
অভিবাসী বান্ধব পর্তুগাল প্রেসিডেন্ট "মার্সেলো রেবেলো"

▪︎পর্তুগাল প্রতিনিধি: করোনা সংকটের মধ্যে গত রবিবার ২৪শে জানুয়ারি পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ক্ষমতাসীন পিএসডি দলের মার্সেলো রেবেলো পর্তুগালে পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। ৬০ দশমিক ৭০ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো ডি সুজা।

ইতিহাসে এই প্রথম জরুরি অবস্থার মধ্যেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশটিতে অনুষ্ঠিত হলো প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। অভিবাসীবান্ধব হওয়ায় বেশ কয়েক বছর ধরেই প্রবাসী বাংলাদেশিদের সমর্থন ছিল মার্সেলোর দিকে। পর্তুগিজদের পাশাপাশি তার বিজয়ে খুশি  অভিবাসীরাও।

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট সাতজন প্রার্থী। তাদের মধ্যে বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্সেলো দ্যা সুসা (পিএসডি),  আনা গোমেজ (পিএস) ,এন্ড্রে ভেনতুরা (সিএইস), মারিছা মেটিয়াস (বিই) , জোয়াও ফেরেরা (পিসিপি) ,তিয়াগো গনসালভেস (আইএল) ও ভিটোরিনু সিলভা (আরআইআর) পার্টি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্সোলো দ্যা সোসা ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে প্রায় ৫২ ভাগ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তিনি ২০১৬ সালের ৯ মার্চ প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ওই সময় থেকে তিনি ও প্রধানমন্ত্রী এন্তোনিও কোস্টারের মধ্যে রয়েছে একটি সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক।

উল্লেখ্য, ১২ দশমিক ৯৭ শতাংশ ভোটে আনা গোমেজের অবস্থান দ্বিতীয় এবং ১১ দশমিক ৯০ শতাংশ ভোটে তৃতীয় অবস্থানে ছিলেন কট্টরপন্থি আন্দ্রে ভেনতুরা।

কোভিড-১৯–এর মতো জাতীয় দুর্যোগে স্থানীয় নাগরিকদের পাশাপাশি অনিয়মিত অভিবাসীদের সমান অধিকার নিশ্চিত করতে প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো সরকার করোনা সংকটময় সময়ে অনিয়মিত অভিবাসীদের নির্দিষ্ট নিয়মে আবেদনের পেক্ষিতে  বৈধতা দেওয়ার ঘোষনা করেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here